১৯৯৮ সালের গুগলেটি কেমন ছিলো কাজই বা কেমন করতো ৷ ফিরে যান ১৯৯৮ এর গুগোল এ ৷


১৯৯৮ সালের গুগলেটি কেমন ছিলো কাজই বা কেমন করতো ৷ ফিরে যান ১৯৯৮ এর গুগোল এ ৷


গুগল! আমরা প্রতিদিন নতুন কিছু জানার জন্য ইন্টারনেটে ঘুরে বেড়াই ইচ্চামতো।
আর এই নতুন কিছু জানতে গুগল আমাদের সাহায্য করে অনেকভাবেই। কারণ নতুন কিছু জানার জন্য ইন্টারনেটে প্রথমেই আমরা গুগল এর ওয়েবসাইটে (https://www.google.com) যাই প্রতিদিনই, তারপর আমরা যা জানতে চাই সেটা সার্চ করি আমাদের শিক্ষনিওর জন্য অনেক কিছুই।
স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি ছাত্র থাকাকালীন ল্যারি পেজ ও সের্গেই ব্রিন ১৯৯৮ সালে গুগল নির্মান করেছিলেন তিনি ৷
গুগলে বর্তমানে সারা পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি মানুষ ভিজিট করে এবং করেছে ৷
তাই গুগল এর রাঙ্ক সারা পৃথিবীতে প্রথম স্থানে রয়েছে এবং থাকবে ৷ বর্তমানে গুগল অনেক উন্নত এবং দেখতে সুন্দর হয়েছে তাদের অনেক সার্ফিসের জন্য ৷ চলুন না বন্ধূরা আমরা আজকে এক্টূ ১৯৯৮ সালের গুগলে ফিরে যাবো।
১৯৯৮ সালের গুগলে ফিরে যাওয়ার জন্য প্রথমে আমাদের একটি ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে। ওয়েবসাইটটির লিঙ্ক আমি নিচে দিয়ে দিয়েছি। অথবা আপনি গুগল এ (google 98) লিখে সার্চ করুন। সার্চ করার পর প্রথমেই যে ওয়েবসাইটটি আসবে সেই ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন এবং ১৯৯৮ সালের গুগোল এর মজা নিন ৷



Link Hare



ওয়েবসাইটটিতে ভিজিট করার পর নিচের স্ক্রিনশট গুলোর মতো দেখতে পাবেন ৷ ১৯৯৮ সালের গুগল এরসেই প্রথম পেজ দেখতে এরকমি ছিলো ৷
তারপর নিচের দেখানো স্ক্রিনশট এর মতো সার্চ বারে আপনি যা সার্চ করতে চান, সেটা লেখবেন , দেখুন আমি গুগল (google) লেখেছি।
তারপর নিচের স্ক্রিনশট এর মতো গুগল সার্চ (Google Search) এ ক্লিক করুন।
তারপর নিচের স্ক্রিনশট দেখুন, ১৯৯৮ সালে গুগল এ সার্চ করার পর দেখতে এরকম ছিলো ৷ ছিলো আরো অনেক অন্ড এবং অনেক কিউট একটা ৷আমি মনে করি আগের এই গুগোল টাই অনেক ভালো ৷ যদিওবা আমাকে তেমন ভালৈ লাগে নাই ৷ তবুও আগের এই ১৯৯৮ এর গুগল এ তেমন কিছু নাই ৷ শুধু ডিজাইম টাত্রই ৷ তাছাড়া সাইটটা দেখতে মটামুটি ৷ কিন্তু অনেক ওয়েবসাইট এই গুগল টিতে এড নাই ৷ আশা করি শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য আপনারা এই গুগোল টি ব্যবহার করবেন ৷ ভালো থাকবেন ৷হ্যা !বুঝছি অপনারা আমার বকর বকর শুনে বলছেন আর কত বড় হবে পষ্টটা ৷ হ্যা বন্ধূরা আর বাড়ালাম না পষ্টটি ৷ আর এ পর্যন্তই ৷ ভালো থাকবেন ৷ ভালো রাখবেন ৷ আল্লাহ হাফেজ ৷ আসলামুআলাইকুম ৷

Post a Comment

0 Comments